আল-আদাবুল মুফরাদ প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৫- প্রতিবেশী সম্পর্কে নসীহত।

১০০। আয়েশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ জিবরাঈল (আবু দাউদ) আমাকে প্রতিবেশী সম্পর্কে এতো অধিক নসীহত করতে থাকেন যে, আমি মনে মনে ভাবলাম, তিনি হয়তো প্রতিবেশীকে ওয়ারিস বানাবেন (বুখারী, মুসলিম, আবু দাউদ, ইবনে মাজাহ, হিব্বান)।

بَابُ الْوَصَاةِ بِالْجَارِ

حَدَّثَنَا إِسْمَاعِيلُ بْنُ أَبِي أُوَيْسٍ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي مَالِكٌ، عَنْ يَحْيَى بْنِ سَعِيدٍ قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنِي أَبُو بَكْرِ بْنُ مُحَمَّدٍ، عَنْ عَمْرَةَ، عَنْ عَائِشَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا، عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم قَالَ‏:‏ مَا زَالَ جِبْرِيلُ صلى الله عليه وسلم يُوصِينِي بِالْجَارِ حَتَّى ظَنَنْتُ أَنَّهُ سَيُوَرِّثُهُ‏.‏

حدثنا إسماعيل بن أبي أويس قال‏:‏ حدثني مالك، عن يحيى بن سعيد قال‏:‏ أخبرني أبو بكر بن محمد، عن عمرة، عن عائشة رضي الله عنها، عن النبي صلى الله عليه وسلم قال‏:‏ ما زال جبريل صلى الله عليه وسلم يوصيني بالجار حتى ظننت أنه سيورثه‏.‏


'A'isha reported that the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, said, "Jibril, may Allah bless him and grant him peace, kept on recommending that I treat neighbours well until I thought that he would order me to treat them as my heirs."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৫- প্রতিবেশী সম্পর্কে নসীহত।

১০১। আবু শুরায়হ আল-খুযাঈ (রাঃ) থেকে বর্ণিত। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ যে ব্যক্তি আল্লাহ ও আখেরাতের দিনের প্রতি ঈমান রাখে সে যেন তার প্রতিবেশীর প্রতি দয়াপরবশ হয়। যে ব্যক্তি আল্লাহ ও আখেরাতের দিনের প্রতি ঈমান রাখে সে সেন তার মেহমানের সমাদর করে। যে ব্যক্তি আল্লাহ ও আখেরাতের দিনের প্রতি ঈমান রাখে সে যেন উত্তম কথা বলে অন্যথায় নীরব থাকে (বুখারী, মুসলিম, আবু দাউদ, নাসাঈ, ইবনে মাজাহ, আহমাদ, তাহাবী)।

بَابُ الْوَصَاةِ بِالْجَارِ

حَدَّثَنَا صَدَقَةُ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا ابْنُ عُيَيْنَةَ، عَنْ عَمْرٍو، عَنْ نَافِعِ بْنِ جُبَيْرٍ، عَنْ أَبِي شُرَيْحٍ الْخُزَاعِيِّ، عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم قَالَ‏:‏ مَنْ كَانَ يُؤْمِنُ بِاللَّهِ وَالْيَوْمِ الْآخِرِ فَلْيُحْسِنْ إِلَى جَارِهِ، وَمَنْ كَانَ يُؤْمِنُ بِاللَّهِ وَالْيَوْمِ الْآخِرِ فَلْيُكْرِمْ ضَيْفَهُ، وَمَنْ كَانَ يُؤْمِنُ بِاللَّهِ وَالْيَوْمِ الْآخِرِ فَلْيَقُلْ خَيْرًا أَوْ لِيَصْمُتْ‏.‏

حدثنا صدقة، قال‏:‏ أخبرنا ابن عيينة، عن عمرو، عن نافع بن جبير، عن أبي شريح الخزاعي، عن النبي صلى الله عليه وسلم قال‏:‏ من كان يؤمن بالله واليوم الآخر فليحسن إلى جاره، ومن كان يؤمن بالله واليوم الآخر فليكرم ضيفه، ومن كان يؤمن بالله واليوم الآخر فليقل خيرا أو ليصمت‏.‏


Abu Shurayh al-Khuza'i reported that the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, said, "Anyone who believes in Allah and the Last Day should be good to his neighbours. Anyone who believes in Allah and the Last Day should be generous to his guest. Anyone who believes in Allah and the Last Day should be say what is good or be silent."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৬- প্রতিবেশীর অধিকার।

১০২। মিকদাদ ইবনুল আসওয়াদ (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাঁর সাহাবীগণকে যেনা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করলেন। তারা বলেন, হারাম, আল্লাহ ও তাঁর রাসূল তা হারাম করেছেন। তিনি বলেনঃ কোন ব্যক্তির দশটি নারীর সাথে যেনায় লিপ্ত হওয়া তার প্রতিবেশীর স্ত্রীর সাথে তার যেনা করার চেয়ে হালকা (পাপ)। পুনরায় তিনি তাদেরকে চুরি সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলেন। তারা বলেন, হারাম, মহামহিম আল্লাহ ও তাঁর রাসূল তা হারাম করেছেন। তিনি বলেনঃ কোন ব্যক্তির দশ পরিবারে চুরি করা তার প্রতিবেশীর ঘরে চুরি করার চেয়ে হালকা (অপরাধ)। (আবু দাউদ)।

بَابُ حَقِّ الْجَارِ

حَدَّثَنَا أَحْمَدُ بْنُ حُمَيْدٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ فُضَيْلٍ، عَنْ مُحَمَّدِ بْنِ سَعْدٍ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ أَبَا ظَبْيَةَ الْكَلاَعِيَّ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ الْمِقْدَادَ بْنَ الأَسْوَدِ يَقُولُ‏:‏ سَأَلَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم أَصْحَابَهُ عَنِ الزِّنَا‏؟‏ قَالُوا‏:‏ حَرَامٌ، حَرَّمَهُ اللَّهُ وَرَسُولُهُ، فَقَالَ‏:‏ لأَنْ يَزْنِيَ الرَّجُلُ بِعَشْرِ نِسْوَةٍ، أَيْسَرُ عَلَيْهِ مِنْ أَنْ يَزْنِيَ بِامْرَأَةِ جَارِهِ، وَسَأَلَهُمْ عَنِ السَّرِقَةِ‏؟‏ قَالُوا‏:‏ حَرَامٌ، حَرَّمَهَا اللَّهُ عَزَّ وَجَلَّ وَرَسُولُهُ، فَقَالَ‏:‏ لأَنْ يَسْرِقَ مِنْ عَشَرَةِ أَهْلِ أَبْيَاتٍ، أَيْسَرُ عَلَيْهِ مِنْ أَنْ يَسْرِقَ مِنْ بَيْتِ جَارِهِ‏.‏

حدثنا أحمد بن حميد، قال‏:‏ حدثنا محمد بن فضيل، عن محمد بن سعد قال‏:‏ سمعت أبا ظبية الكلاعي قال‏:‏ سمعت المقداد بن الأسود يقول‏:‏ سأل رسول الله صلى الله عليه وسلم أصحابه عن الزنا‏؟‏ قالوا‏:‏ حرام، حرمه الله ورسوله، فقال‏:‏ لأن يزني الرجل بعشر نسوة، أيسر عليه من أن يزني بامرأة جاره، وسألهم عن السرقة‏؟‏ قالوا‏:‏ حرام، حرمها الله عز وجل ورسوله، فقال‏:‏ لأن يسرق من عشرة أهل أبيات، أيسر عليه من أن يسرق من بيت جاره‏.‏


Al-Miqdad ibn al-Aswad reported that the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, asked his Companions about fornication and they said, "It is unlawful. Allah and His Messenger have made it unlawful." He said, "It is less serious for a man to fornicate with ten women than for him to fornicate with his neighbour's wife." Then he asked them about stealing. They replied, "It is unlawful. Allah and His Messenger have made it unlawful." He said, "It is less serious for a man to steal from ten houses than it is for him to steal from his neighbour's house."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৭- প্রতিবেশী থেকে (সদাচার) শুরু করবে।

১০৩। ইবনে উমার (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ জিবরাঈল (আবু দাউদ) আমাকে প্রতিবেশী সম্পর্কে এতো অধিক নসীহত করতে থাকেন যে, আমি মনে মনে ভাবলাম, তিনি হয়তো প্রতিবেশীকে ওয়ারিস বানাবেন (বুখারী, মুসলিম)।

بَابُ يَبْدَأُ بِالْجَارِ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ مِنْهَالٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا يَزِيدُ بْنُ زُرَيْعٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عُمَرُ بْنُ مُحَمَّدٍ، عَنْ أَبِيهِ، عَنِ ابْنِ عُمَرَ قَالَ‏:‏ قَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم‏:‏ مَا زَالَ جِبْرِيلُ يُوصِينِي بِالْجَارِ حَتَّى ظَنَنْتُ أَنَّهُ سَيُوَرِّثُهُ‏.‏

حدثنا محمد بن منهال، قال‏:‏ حدثنا يزيد بن زريع، قال‏:‏ حدثنا عمر بن محمد، عن أبيه، عن ابن عمر قال‏:‏ قال رسول الله صلى الله عليه وسلم‏:‏ ما زال جبريل يوصيني بالجار حتى ظننت أنه سيورثه‏.‏


Ibn 'Umar reported that the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, "Jibril kept on recommending that I treat my neighbours well until I thought that he would order me to treat them as my heirs."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৭- প্রতিবেশী থেকে (সদাচার) শুরু করবে।

১০৪। আবদুল্লাহ ইবনে আমর (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তার জন্য একটি ছাগল যবেহ করা হলে তিনি তার গোলামকে বলতে লাগলেন, তুমি কি আমাদের ইহুদী প্রতিবেশীকে তা দিয়েছো? তুমি কি আমাদের ইহুদী প্রতিবেশীকে তা দিয়েছো? আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে বলতে শুনেছিঃ জিবরাঈল (আবু দাউদ) আমাকে প্রতিবেশী সম্পর্কে অবিরত নসীহত করতে থাকেন। আমি মনে মনে ভাবলাম যে, তিনি তাকে হয়তো ওয়ারিস বানাবেন (আবু দাউদ, তিরমিযী)।

بَابُ يَبْدَأُ بِالْجَارِ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ سَلامٍ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا سُفْيَانُ بْنُ عُيَيْنَةَ، عَنْ دَاوُدَ بْنِ شَابُورَ، وَأَبِي إِسْمَاعِيلَ، عَنْ مُجَاهِدٍ، عَنْ عَبْدِ اللهِ بْنِ عَمْرٍو، أَنَّهُ ذُبِحَتْ لَهُ شَاةٌ، فَجَعَلَ يَقُولُ لِغُلاَمِهِ‏:‏ أَهْدَيْتَ لِجَارِنَا الْيَهُودِيِّ‏؟‏ أَهْدَيْتَ لِجَارِنَا الْيَهُودِيِّ‏؟‏ سَمِعْتُ رَسُولَ اللهِ صلى الله عليه وسلم يَقُولُ‏:‏ مَا زَالَ جِبْرِيلُ يُوصِينِي بِالْجَارِ حَتَّى ظَنَنْتُ أَنَّهُ سَيُوَرِّثُهُ‏.‏

حدثنا محمد بن سلام، قال‏:‏ أخبرنا سفيان بن عيينة، عن داود بن شابور، وأبي إسماعيل، عن مجاهد، عن عبد الله بن عمرو، أنه ذبحت له شاة، فجعل يقول لغلامه‏:‏ أهديت لجارنا اليهودي‏؟‏ أهديت لجارنا اليهودي‏؟‏ سمعت رسول الله صلى الله عليه وسلم يقول‏:‏ ما زال جبريل يوصيني بالجار حتى ظننت أنه سيورثه‏.‏


Mujahid reported that a sheep was slaughtered for 'Abdullah ibn 'Amr. He asked his slave, 'Have you given any to our Jewish neighbour? Have you given any to our Jewish neighbour? I heard the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, say, 'Jibril kept on recommending that I treat my neighbours well until I thought that he would order me to treat them as my heirs.'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৭- প্রতিবেশী থেকে (সদাচার) শুরু করবে।

১০৫। আয়েশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে বলতে শুনেছেনঃ জিবরাঈল (আবু দাউদ) আমাকে প্রতিবেশী সম্পর্কে এতো অধিক নসীহত করতে থাকেন যে, আমি মনে মনে ভাবলাম যে, তিনি হয়তো প্রতিবেশীকে ওয়ারিস বানাবেন (১০০ নং দ্র.)।

بَابُ يَبْدَأُ بِالْجَارِ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ سَلامٍ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا عَبْدُ الْوَهَّابِ الثَّقَفِيُّ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ يَحْيَى بْنَ سَعِيدٍ يَقُولُ‏:‏ حَدَّثَنِي أَبُو بَكْرٍ، أَنَّ عَمْرَةَ حَدَّثَتْهُ، أَنَّهَا سَمِعَتْ عَائِشَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا تَقُولُ‏:‏ سَمِعْتُ رَسُولَ اللهِ صلى الله عليه وسلم يَقُولُ‏:‏ مَا زَالَ جِبْرِيلُ يُوصِينِي بِالْجَارِ حَتَّى ظَنَنْتُ أَنَّهُ لَيُوَرِّثُهُ‏.‏

حدثنا محمد بن سلام، قال‏:‏ أخبرنا عبد الوهاب الثقفي قال‏:‏ سمعت يحيى بن سعيد يقول‏:‏ حدثني أبو بكر، أن عمرة حدثته، أنها سمعت عائشة رضي الله عنها تقول‏:‏ سمعت رسول الله صلى الله عليه وسلم يقول‏:‏ ما زال جبريل يوصيني بالجار حتى ظننت أنه ليورثه‏.‏

হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৮- নিকটতর প্রতিবেশী থেকে উপহারাদি দান শুরু করবে।

১০৬। আয়েশা (রাঃ) বলেন, আমি বললাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমার দুইজন প্রতিবেশী আছে। তাদের মধ্যে কোন প্রতিবেশীকে আমি উপহারাদি দিবো? তিনি বলেনঃ যার (ঘরের) দরজা তোমার অধিকতর নিকটবর্তী তাকে (বুখারী, আবু দাউদ, তাহাবী)।

بَابُ يَهْدِي إِلَى أَقْرَبِهِمْ بَابًا

حَدَّثَنَا حَجَّاجُ بْنُ مِنْهَالٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا شُعْبَةُ قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنِي أَبُو عِمْرَانَ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ طَلْحَةَ، عَنْ عَائِشَةَ قَالَتْ‏:‏ قُلْتُ‏:‏ يَا رَسُولَ اللهِ، إِنَّ لِي جَارَيْنِ، فَإِلَى أَيِّهِمَا أُهْدِي‏؟‏ قَالَ‏:‏ إِلَى أَقْرَبِهِمَا مِنْكِ بَابًا‏.‏

حدثنا حجاج بن منهال، قال‏:‏ حدثنا شعبة قال‏:‏ أخبرني أبو عمران قال‏:‏ سمعت طلحة، عن عائشة قالت‏:‏ قلت‏:‏ يا رسول الله، إن لي جارين، فإلى أيهما أهدي‏؟‏ قال‏:‏ إلى أقربهما منك بابا‏.‏


'A'isha said, "I said, 'Messenger of Allah, I have two neighbours. To whom should I give my gifts?' He replied, 'To the one whose door is nearer to you.'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৮- নিকটতর প্রতিবেশী থেকে উপহারাদি দান শুরু করবে।

১০৭। আয়েশা (রাঃ) বলেন, আমি বললাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমার দুইজন প্রতিবেশী আছে। তাদের মধ্যে কোন প্রতিবেশীকে আমি উপহারাদি দিবো? তিনি বলেনঃ যার দরজা তোমার অধিকতর নিকটবর্তী তাকে (বুখারী, আবু দাউদ)।

بَابُ يَهْدِي إِلَى أَقْرَبِهِمْ بَابًا

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ بَشَّارٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ جَعْفَرٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا شُعْبَةُ، عَنْ أَبِي عِمْرَانَ الْجَوْنِيِّ، عَنْ طَلْحَةَ بْنِ عَبْدِ اللهِ، رَجُلٌ مِنْ بَنِي تَيْمِ بْنِ مُرَّةَ، عَنْ عَائِشَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا قَالَتْ‏:‏ قُلْتُ‏:‏ يَا رَسُولَ اللهِ، إِنَّ لِي جَارَيْنِ، فَإِلَى أَيِّهِمَا أُهْدِي‏؟‏ قَالَ‏:‏ إِلَى أَقْرَبِهِمَا مِنْكِ بَابًا‏.‏

حدثنا محمد بن بشار، قال‏:‏ حدثنا محمد بن جعفر، قال‏:‏ حدثنا شعبة، عن أبي عمران الجوني، عن طلحة بن عبد الله، رجل من بني تيم بن مرة، عن عائشة رضي الله عنها قالت‏:‏ قلت‏:‏ يا رسول الله، إن لي جارين، فإلى أيهما أهدي‏؟‏ قال‏:‏ إلى أقربهما منك بابا‏.‏

হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৯- নিকটতর অতঃপর পরবর্তী নিকটতর প্রতিবেশী।

১০৮। হাসান (রহঃ) থেকে বর্ণিত। তাকে প্রতিবেশী সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, নিজের ঘর থেকে সামনের চল্লিশ ঘর, পেছনের চল্লিশ ঘর, ডানের চল্লিশ ঘর এবং বামের চল্লিশ ঘর তোমাদের প্রতিবেশী।

بَابُ الاَدْنَى فَالادْنَى مِنَ الْجِيرَانِ

حَدَّثَنَا الْحُسَيْنُ بْنُ حُرَيْثٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا الْفَضْلُ بْنُ مُوسَى، عَنِ الْوَلِيدِ بْنِ دِينَارٍ، عَنِ الْحَسَنِ، أَنَّهُ سُئِلَ عَنِ الْجَارِ، فَقَالَ‏:‏ أَرْبَعِينَ دَارًا أَمَامَهُ، وَأَرْبَعِينَ خَلْفَهُ، وَأَرْبَعِينَ عَنْ يَمِينِهِ، وَأَرْبَعِينَ عَنْ يَسَارِهِ‏.‏

حدثنا الحسين بن حريث، قال‏:‏ حدثنا الفضل بن موسى، عن الوليد بن دينار، عن الحسن، أنه سئل عن الجار، فقال‏:‏ أربعين دارا أمامه، وأربعين خلفه، وأربعين عن يمينه، وأربعين عن يساره‏.‏


Al-Hasan was asked about the neighbour and said, "The term 'neighbour' includes the forty houses in front a person, the forty houses behind him, the forty houses on his right and the forty houses on his left."


হাদিসের মানঃ হাসান (Hasan)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৫৯- নিকটতর অতঃপর পরবর্তী নিকটতর প্রতিবেশী।

১০৯। আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন, নিকটবর্তী প্রতিবেশীকে বাদ দিয়ে দূরতর প্রতিবেশী থেকে (উপঢৌকনাদি প্রেরণ) শুরু করা যাবে না, বরং দূরবর্তী জনের পূর্বে নিকটবর্তী জন থেকে তা শুরু করতে হবে।

بَابُ الاَدْنَى فَالادْنَى مِنَ الْجِيرَانِ

حَدَّثَنَا بِشْرُ بْنُ مُحَمَّدٍ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا عَبْدُ اللهِ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا عِكْرِمَةُ بْنُ عَمَّارٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عَلْقَمَةُ بْنُ بَجَالَةَ بْنِ زَيْدٍ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ أَبَا هُرَيْرَةَ قَالَ‏:‏ وَلاَ يَبْدَأُ بِجَارِهِ الأَقْصَى قَبْلَ الأَدْنَى، وَلَكِنْ يَبْدَأُ بِالأَدْنَى قَبْلَ الأَقْصَى‏.‏

حدثنا بشر بن محمد، قال‏:‏ أخبرنا عبد الله، قال‏:‏ أخبرنا عكرمة بن عمار، قال‏:‏ حدثنا علقمة بن بجالة بن زيد قال‏:‏ سمعت أبا هريرة قال‏:‏ ولا يبدأ بجاره الأقصى قبل الأدنى، ولكن يبدأ بالأدنى قبل الأقصى‏.‏


Abu Hurayra said, "Do not begin with your more distant neighbours before the closer ones. Rather begin with your nearest neighbours before the most distant ones."


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬০- যে ব্যক্তি প্রতিবেশীর জন্য নিজের দ্বার রুদ্ধ করে দেয়।

১১০। ইবনে উমার (রাঃ) বলেন, এমন একটি কাল আমরা অতিবাহিত করেছি যখন কারো নিকট তার মুসলিম ভাইয়ের চেয়ে তার দীনার ও দিরহামের উপযুক্ত প্রাপক আর কেউ ছিলো না। আর এখন এমন যুগ এসেছে যখন দীনার ও দিরহামই আমাদের কারো নিকট তার মুসলিম ভাইয়ের চেয়ে অধিক প্রিয়। আমি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে বলতে শুনেছিঃ অনেক প্রতিবেশী কিয়ামতের দিন তার প্রতিবেশীকে অভিযুক্ত করবে এবং বলবে, এই ব্যক্তি আমার জন্য তার দ্বার রুদ্ধ করে রেখেছিল এবং আমাকে তার সদাচার থেকে বঞ্চিত করেছে।

بَابُ مَنْ أَغْلَقَ الْبَابَ عَلَى الْجَارِ

حَدَّثَنَا مَالِكُ بْنُ إِسْمَاعِيلَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عَبْدُ السَّلاَمِ، عَنْ لَيْثٍ، عَنْ نَافِعٍ، عَنِ ابْنِ عُمَرَ قَالَ‏:‏ لَقَدْ أَتَى عَلَيْنَا زَمَانٌ، أَوْ قَالَ‏:‏ حِينٌ، وَمَا أَحَدٌ أَحَقُّ بِدِينَارِهِ وَدِرْهَمِهِ مِنْ أَخِيهِ الْمُسْلِمِ، ثُمَّ الْآنَ الدِّينَارُ وَالدِّرْهَمُ أَحَبُّ إِلَى أَحَدِنَا مِنْ أَخِيهِ الْمُسْلِمِ، سَمِعْتُ النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم يَقُولُ‏:‏ كَمْ مِنْ جَارٍ مُتَعَلِّقٌ بِجَارِهِ يَوْمَ الْقِيَامَةِ يَقُولُ‏:‏ يَا رَبِّ، هَذَا أَغْلَقَ بَابَهُ دُونِي، فَمَنَعَ مَعْرُوفَهُ‏.‏

حدثنا مالك بن إسماعيل، قال‏:‏ حدثنا عبد السلام، عن ليث، عن نافع، عن ابن عمر قال‏:‏ لقد أتى علينا زمان، أو قال‏:‏ حين، وما أحد أحق بديناره ودرهمه من أخيه المسلم، ثم الآن الدينار والدرهم أحب إلى أحدنا من أخيه المسلم، سمعت النبي صلى الله عليه وسلم يقول‏:‏ كم من جار متعلق بجاره يوم القيامة يقول‏:‏ يا رب، هذا أغلق بابه دوني، فمنع معروفه‏.‏


Ibn 'Umar said, "There was a time when no one was more entitled to a person's money than his Muslim brother. Now people love their dirhams and dinars more than their Muslim brother. I heard the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, say, 'How many a neighbour will be brought together with his neighbour on the Day of Rising! He will say, "Lord, this man closed his door to me and refused to show me common kindness!"


হাদিসের মানঃ হাসান (Hasan)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬১- প্রতিবেশীকে বাদ রেখে তৃপ্তি সহকারে আহার করা নিষেধ।

১১১। ইবনে আব্বাস (রাঃ) ইবনুয যুবাইর (রাঃ)-কে অবহিত করে বলেন, আমি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে বলতে শুনেছিঃ যে ব্যক্তি তার প্রতিবেশীকে অভুক্ত রেখে তৃপ্তি সহকারে আহার করে সে মুমিন নয় (বাযযার, হাকিম, তাহাবী)।

بَابُ لا يَشْبَعُ دُونَ جَارِهِ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ كَثِيرٍ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا سُفْيَانُ، عَنْ عَبْدِ الْمَلِكِ بْنِ أَبِي بَشِيرٍ، عَنْ عَبْدِ اللهِ بْنِ الْمُسَاوِرِ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ ابْنَ عَبَّاسٍ يُخْبِرُ ابْنَ الزُّبَيْرِ يَقُولُ‏:‏ سَمِعْتُ النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم يَقُولُ‏:‏ لَيْسَ الْمُؤْمِنُ الَّذِي يَشْبَعُ وَجَارُهُ جَائِعٌ‏.‏

حدثنا محمد بن كثير، قال‏:‏ أخبرنا سفيان، عن عبد الملك بن أبي بشير، عن عبد الله بن المساور قال‏:‏ سمعت ابن عباس يخبر ابن الزبير يقول‏:‏ سمعت النبي صلى الله عليه وسلم يقول‏:‏ ليس المؤمن الذي يشبع وجاره جائع‏.‏


Ibn 'Abbas told Ibn az-Zubayr, "I heard the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, say, 'A man is not a believer who fills his stomach while his neighbour is hungry.'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬২- তরকারীতে বেশী ঝোল রাখবে এবং তা প্রতিবেশীদেরও দিবে।

১১২। আবু যার (রাঃ) বলেন, আমার অন্তরঙ্গ বন্ধু সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে তিনটি উপদেশ দিয়েছেনঃ (১) নেতা নাক-কান কাটা গোলাম হলেও আমি তার নির্দেশ শুনবো এবং আনুগত্য করবো। (২) তুমি তরকারী রান্না করলে তাতে বেশী ঝোল রাখবে, অতঃপর তোমার প্রতিবেশীদের দিকে লক্ষ্য করবে এবং সদিচ্ছা সহকারে তাদের তা পৌঁছাবে। (৩) নামায তার নির্ধারিত ওয়াক্তে আদায় করবে। যদি দেখো যে, ইমাম নামায পড়েছেন এবং তোমার নামাযও তুমি পড়েছো, তাহলে তোমার নামায তো হয়েছে নতুবা ইমামের সাথে তোমার নামায নফল হিসেবে গণ্য হবে (মুসলিম, তিরমিযী, নাসাঈ, ইবনে মাজাহ, আবু দাউদ, হিব্বান)।

بَابُ يُكْثِرُ مَاءَ الْمَرَقِ فَيَقْسِمُ فِي الْجِيرَانِ

حَدَّثَنَا بِشْرُ بْنُ مُحَمَّدٍ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا عَبْدُ اللهِ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا شُعْبَةُ، عَنْ أَبِي عِمْرَانَ الْجَوْنِيِّ، عَنْ عَبْدِ اللهِ بْنِ الصَّامِتِ، عَنْ أَبِي ذَرٍّ قَالَ‏:‏ أَوْصَانِي خَلِيلِي صلى الله عليه وسلم بِثَلاَثٍ‏:‏ أَسْمَعُ وَأُطِيعُ وَلَوْ لِعَبْدٍ مُجَدَّعِ الأَطْرَافِ، وَإِذَا صَنَعْتَ مَرَقَةً فَأَكْثِرْ مَاءَهَا، ثُمَّ انْظُرْ أَهْلَ بَيْتٍ مِنْ جِيرَانِكَ، فَأَصِبْهُمْ مِنْهُ بِمَعْرُوفٍ، وَصَلِّ الصَّلاَةَ لِوَقْتِهَا، فَإِنْ وَجَدْتَ الإِمَامَ قَدْ صَلَّى، فَقَدْ أَحْرَزْتَ صَلاَتَكَ، وَإِلاَّ فَهِيَ نَافِلَةٌ‏.‏

حدثنا بشر بن محمد، قال‏:‏ أخبرنا عبد الله، قال‏:‏ أخبرنا شعبة، عن أبي عمران الجوني، عن عبد الله بن الصامت، عن أبي ذر قال‏:‏ أوصاني خليلي صلى الله عليه وسلم بثلاث‏:‏ أسمع وأطيع ولو لعبد مجدع الأطراف، وإذا صنعت مرقة فأكثر ماءها، ثم انظر أهل بيت من جيرانك، فأصبهم منه بمعروف، وصل الصلاة لوقتها، فإن وجدت الإمام قد صلى، فقد أحرزت صلاتك، وإلا فهي نافلة‏.‏


It is reported that Abu Dharr said, "My dear friend, may Allah bless him and grant him peace, enjoined three things on me:
'Hear and obey, even if the ruler is a slave with his limbs amputated. When you cook a stew, put a lot of water in it and then go and see the people of a neighbouring house and give them a reasonable amount of it. Pray the prayers at their proper prayers. Then if you find that the imam has already prayed, you have guarded your prayer (by already having performed it). If not, it is a supererogatory prayer (since you have done it again)."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬২- তরকারীতে বেশী ঝোল রাখবে এবং তা প্রতিবেশীদেরও দিবে।

১১৩। আবু যার (রাঃ) বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ হে আবু যার! তুমি তরকারী রান্না করলে তাতে পানি (ঝোল) বেশী রাখো এবং তা তোমার প্রতিবেশীদের মধ্যে বিলাও (মুসলিম, আবু দাউদ, দারিমী, হিব্বান)।

بَابُ يُكْثِرُ مَاءَ الْمَرَقِ فَيَقْسِمُ فِي الْجِيرَانِ

حَدَّثَنَا الْحُمَيْدِيُّ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو عَبْدِ الصَّمَدِ الْعَمِّيُّ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو عِمْرَانَ، عَنْ عَبْدِ اللهِ بْنِ الصَّامِتِ، عَنْ أَبِي ذَرٍّ قَالَ‏:‏ قَالَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم‏:‏ يَا أَبَا ذَرٍّ، إِذَا طَبَخْتَ مَرَقَةً فَأَكْثِرْ مَاءَ الْمَرَقَةِ، وَتَعَاهَدْ جِيرَانَكَ، أَوِ اقْسِمْ فِي جِيرَانِكَ‏.‏

حدثنا الحميدي، قال‏:‏ حدثنا أبو عبد الصمد العمي، قال‏:‏ حدثنا أبو عمران، عن عبد الله بن الصامت، عن أبي ذر قال‏:‏ قال النبي صلى الله عليه وسلم‏:‏ يا أبا ذر، إذا طبخت مرقة فأكثر ماء المرقة، وتعاهد جيرانك، أو اقسم في جيرانك‏.‏


Abu Dharr reported that the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, said, "Abu Dharr! If you cook some stew, make a lot of it and fulfil your duty to your neighbours (or divide it among your neighbours)."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬৩- উত্তম প্রতিবেশী

১১৪। আবদুল্লাহ ইবনে আমর ইবনুল আস (রাঃ) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ আল্লাহর নিকট সেই সঙ্গী উত্তম যে নিজ সঙ্গীদের নিকট উত্তম। আল্লয়হর নিকট সেই প্রতিবেশী উত্তম যে নিজ প্রতিবেশীদের নিকট উত্তম (তিরমিযী, আবু দাউদ, হাকিম, দারিমী)।

بَابُ خَيْرِ الْجِيرَانِ

حَدَّثَنَا عَبْدُ اللهِ بْنُ يَزِيدَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا حَيْوَةُ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا شُرَحْبِيلُ بْنُ شَرِيكٍ، أَنَّهُ سَمِعَ أَبَا عَبْدِ الرَّحْمَنِ الْحُبُلِيَّ يُحَدِّثُ، عَنْ عَبْدِ اللهِ بْنِ عَمْرِو بْنِ الْعَاصِ، عَنْ رَسُولِ اللهِ صلى الله عليه وسلم أَنَّهُ قَالَ‏:‏ خَيْرُ الأَصْحَابِ عِنْدَ اللهِ تَعَالَى خَيْرُهُمْ لِصَاحِبِهِ، وَخَيْرُ الْجِيرَانِ عِنْدَ اللهِ تَعَالَى خَيْرُهُمْ لِجَارِهِ‏.‏

حدثنا عبد الله بن يزيد، قال‏:‏ حدثنا حيوة، قال‏:‏ أخبرنا شرحبيل بن شريك، أنه سمع أبا عبد الرحمن الحبلي يحدث، عن عبد الله بن عمرو بن العاص، عن رسول الله صلى الله عليه وسلم أنه قال‏:‏ خير الأصحاب عند الله تعالى خيرهم لصاحبه، وخير الجيران عند الله تعالى خيرهم لجاره‏.‏


'Abdullah ibn 'Amr ibn al-'As reported that the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, "The best of companions in the sight of Allah Almighty is the best of them towards his companion, and the best of neighbours in the sight of Allah is the best of them towards his neighbour."


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬৪- সৎ প্রতিবেশী।

১১৫। নাফে ইবনুল হারিস (রাঃ) থেকে বর্ণিত। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ একজন মুসলিমের জন্য প্রশস্ত বাসভবন, সৎ প্রতিবেশী ও আরামদায়ক বাহন সৌভাগ্যের নিদর্শন (আবু দাউদ, হাকিম)।

بَابُ الْجَارِ الصَّالِحِ

حَدَّثَنَا مُحَمَّدُ بْنُ كَثِيرٍ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا سُفْيَانُ، عَنْ حَبِيبِ بْنِ أَبِي ثَابِتٍ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي خَمِيلٌ، عَنْ نَافِعِ بْنِ عَبْدِ الْحَارِثِ، عَنِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم قَالَ‏:‏ مِنْ سَعَادَةِ الْمَرْءِ الْمُسْلِمِ‏:‏ الْمَسْكَنُ الْوَاسِعُ، وَالْجَارُ الصَّالِحُ، وَالْمَرْكَبُ الْهَنِيءُ‏.‏

حدثنا محمد بن كثير، قال‏:‏ أخبرنا سفيان، عن حبيب بن أبي ثابت قال‏:‏ حدثني خميل، عن نافع بن عبد الحارث، عن النبي صلى الله عليه وسلم قال‏:‏ من سعادة المرء المسلم‏:‏ المسكن الواسع، والجار الصالح، والمركب الهنيء‏.‏


Nafi' ibn 'Abdu'l-Harith reported that the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, said, "Part of the happiness of the Muslim man includes a spacious dwelling, righteous neighbour and a good mount"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬৫- নিকৃষ্ট প্রতিবেশী।

১১৬। আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর একটি দোয়া হলোঃ “হে আল্লাহ! আমি (আমার ) আবাসস্থলে তোমার নিকট দুষ্ট প্রতিবেশী থেকে আশ্রয় চাই। কেননা দুনিয়ার প্রতিবেশী তো বদল হতে থাকে” (নাসাঈ, হাকিম, ইবনে হিব্বান)।

بَابُ الْجَارِ السُّوءِ

حَدَّثَنَا صَدَقَةُ، قَالَ‏:‏ أَخْبَرَنَا سُلَيْمَانُ هُوَ ابْنُ حَيَّانَ، عَنِ ابْنِ عَجْلاَنَ، عَنْ سَعِيدٍ، عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ قَالَ‏:‏ كَانَ مِنْ دُعَاءِ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم‏:‏ اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنْ جَارِ السُّوءِ فِي دَارِ الْمُقَامِ، فَإِنَّ جَارَ الدُّنْيَا يَتَحَوَّلُ‏.‏

حدثنا صدقة، قال‏:‏ أخبرنا سليمان هو ابن حيان، عن ابن عجلان، عن سعيد، عن أبي هريرة قال‏:‏ كان من دعاء النبي صلى الله عليه وسلم‏:‏ اللهم إني أعوذ بك من جار السوء في دار المقام، فإن جار الدنيا يتحول‏.‏


Abu Hurayra said, "Part of the supplication of the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, was, "Oh Allah, I seek refuge with you from an evil neighbour in the Eternal World. A neighbour in this world can be changed.


হাদিসের মানঃ হাসান (Hasan)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬৫- নিকৃষ্ট প্রতিবেশী।

১১৭। আবু মূসা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ কোন ব্যক্তি তার প্রতিবেশী, তার ভাই এবং তার পিতাকে হত্যা না করা পর্যন্ত কিয়ামত হবে না।

بَابُ الْجَارِ السُّوءِ

حَدَّثَنَا مَخْلَدُ بْنُ مَالِكٍ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عَبْدُ الرَّحْمَنِ بْنُ مَغْرَاءَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا بُرَيْدُ بْنُ عَبْدِ اللهِ، عَنْ أَبِي بُرْدَةَ، عَنْ أَبِي مُوسَى‏:‏ قَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم‏:‏ لاَ تَقُومُ السَّاعَةُ حَتَّى يَقْتُلَ الرَّجُلُ جَارَهُ وَأَخَاهُ وَأَبَاهُ‏.‏

حدثنا مخلد بن مالك، قال‏:‏ حدثنا عبد الرحمن بن مغراء، قال‏:‏ حدثنا بريد بن عبد الله، عن أبي بردة، عن أبي موسى‏:‏ قال رسول الله صلى الله عليه وسلم‏:‏ لا تقوم الساعة حتى يقتل الرجل جاره وأخاه وأباه‏.‏


Abu Musa reported that the Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, "The Final Hour will not come until a man kills his neighbour, his brother and his father."


হাদিসের মানঃ হাসান (Hasan)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬৬- কেউ যেন তার প্রতিবেশীকে কষ্ট না দেয়।

১১৮। আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন, বাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে বলা হলো ইয়া রাসূলাল্লাহ! অমুক নারী সারা রাত নামায পড়ে, সারা দিন রোযা রাখে, ভালো কাজ করে, দান-খয়রাত করে এবং নিজ প্রতিবেশীদেরকে মুখের কথায় কষ্ট দেয়। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ তার মধ্যে কোন কল্যাণ নেই, সে জাহান্নামী। পুনরায় সাহাবীগণ বলেন, অমুক নারী ফরয নামায পড়ে, বস্ত্র দান করে এবং কাউকে কষ্ট দেয় না। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ সে জান্নাতী (আবু দাউদ, আহমাদ, হাকিম, ইবনে হিব্বান, বাযযার)।

بَابُ لا يُؤْذِي جَارَهُ

حَدَّثَنَا مُسَدَّدٌ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عَبْدُ الْوَاحِدِ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا الأَعْمَشُ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا أَبُو يَحْيَى مَوْلَى جَعْدَةَ بْنِ هُبَيْرَةَ قَالَ‏:‏ سَمِعْتُ أَبَا هُرَيْرَةَ يَقُولُ‏:‏ قِيلَ لِلنَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم‏:‏ يَا رَسُولَ اللهِ، إِنَّ فُلاَنَةً تَقُومُ اللَّيْلَ وَتَصُومُ النَّهَارَ، وَتَفْعَلُ، وَتَصَّدَّقُ، وَتُؤْذِي جِيرَانَهَا بِلِسَانِهَا‏؟‏ فَقَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم‏:‏ لاَ خَيْرَ فِيهَا، هِيَ مِنْ أَهْلِ النَّارِ، قَالُوا‏:‏ وَفُلاَنَةٌ تُصَلِّي الْمَكْتُوبَةَ، وَتَصَّدَّقُ بِأَثْوَارٍ، وَلاَ تُؤْذِي أَحَدًا‏؟‏ فَقَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم‏:‏ هِيَ مِنْ أَهْلِ الْجَنَّةِ‏.‏

حدثنا مسدد، قال‏:‏ حدثنا عبد الواحد، قال‏:‏ حدثنا الأعمش، قال‏:‏ حدثنا أبو يحيى مولى جعدة بن هبيرة قال‏:‏ سمعت أبا هريرة يقول‏:‏ قيل للنبي صلى الله عليه وسلم‏:‏ يا رسول الله، إن فلانة تقوم الليل وتصوم النهار، وتفعل، وتصدق، وتؤذي جيرانها بلسانها‏؟‏ فقال رسول الله صلى الله عليه وسلم‏:‏ لا خير فيها، هي من أهل النار، قالوا‏:‏ وفلانة تصلي المكتوبة، وتصدق بأثوار، ولا تؤذي أحدا‏؟‏ فقال رسول الله صلى الله عليه وسلم‏:‏ هي من أهل الجنة‏.‏


Abu Hurayra said, "The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, was asked, 'Messenger of Allah! A certain woman prays in the night, fasts in the day, acts and gives sadaqa, but injures her neighbours with her tongue.' The Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, 'There is no good in her. She is one of the people of the Fire.' They said, 'Another woman prays the prescribed prayers and gives bits of curd as sadaqa and does not injure anyone.' The Messenger of Allah, may Allah bless him and grant him peace, said, 'She is one of the people of the Garden.'"


হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার

পরিচ্ছেদঃ ৬৬- কেউ যেন তার প্রতিবেশীকে কষ্ট না দেয়।

১১৯। উমারা ইবনে গুরাব (রহঃ) বলেন, তার ফুফু তাকে বলেছেন যে, তিনি উম্মুল মুমিনীন আয়েশা (রাঃ)-কে জিজ্ঞেস করলেন, আমাদের কাউকে তার স্বামী কামনা করলে সে নিজেকে অভিমান অথবা অনিচ্ছা বশত স্বামীর নিকট সমর্পণ করে না। এতে কি আমাদের কোন দোষ হবে? তিনি বলেন, হাঁ। তোমার উপর তার অধিকার এই যে, সে তোমাকে কামনা করলে তুমি তার নিকট নিজেকে সমর্পণ করবে। তুমি তখন উটের পিঠে থাকলেও তাকে বাধা দিতে পারবে না। রাবী বলেন, আমি তাকে বললাম, আমাদের কেউ ঋতুবতী হয়, অথচ তার ও তার স্বামীর একটি মাত্র লেপ বা বিছানা, তখন সে কি করবে? তিনি বলেন, সে তার নিম্নাঙ্গে উত্তমরূপে বস্ত্র কষে বাঁধবে, অতঃপর তার সাথেই ঘুমাবে। এর উপর দিয়ে সে যা করতে চায় করবে। সাথে সাথে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কি করতেন তাও আমি তোমাকে অবহিত করছি। আমার পালার রাতে আমি কিছু যব পিষলাম এবং তাঁর জন্য পিঠা তৈরি করলাম। তিনি ঘরে এসে পুনরায় মসজিদে চলে গেলেন।

তিনি ঘুমাতে উদ্যত হলে ঘরের দরজা বন্ধ করতেন, কলসের মুখ বন্ধ করতেন, পাত্রসমূহ উপুড় করে রাখতেন এবং বাতি নিভিয়ে দিতেন। আমি অপেক্ষায় থাকলাম যে, তিনি ফিরে আসবেন এবং আমি তাঁকে পিঠা খাওয়াবো। কিন্তু তিনি ফিরে আসেননি। শেষে ঘুম আমাকে পরাভূত করলো এবং শীত তাঁকে পীড়া দিলো। তিনি আমার নিকট এসে আমাকে তুললেন, তারপর বললেনঃ আমাকে উত্তাপ দাও, আমাকে উত্তাপ দাও। আমি তাঁকে বললাম, আমি তো ঋতুবতী। তিনি বলেনঃ তথাপি তোমার উরুদ্বয় একটু উম্মুক্ত করো। আমি আমার উরুদ্বয় উম্মুক্ত করলাম। তিনি তার গাল ও মাথা আমার উরুদ্বয়ের উপর রাখলেন। শেষ পর্যন্ত তিনি উত্তপ্ত হলেন। আমাদের প্রতিবেশীর একটি পোষা বকরী এসে পিঠা খেতে উদ্যত হলো। সে একটি পিঠা মুখে তুলে নিলো। আয়েশা (রাঃ) বলেন, আমি নড়াচড়া করায় নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর ঘুম ভেঙ্গে গেলো। আমি তাড়াতাড়ি বকরীটিকে দরজা দিয়ে তাড়িয়ে দিলাম। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ তুমি যে পিঠাটি উঠিয়েছো তা রেখে দাও এবং তোমার প্রতিবেশীকে তার বকরীর কারণে কষ্ট দিও না।

بَابُ لا يُؤْذِي جَارَهُ

حَدَّثَنَا عَبْدُ اللهِ بْنُ يَزِيدَ، قَالَ‏:‏ حَدَّثَنَا عَبْدُ الرَّحْمَنِ بْنُ زِيَادٍ قَالَ‏:‏ حَدَّثَنِي عُمَارَةُ بْنُ غُرَابٍ، أَنَّ عَمَّةً لَهُ حَدَّثَتْهُ، أَنَّهَا سَأَلَتْ عَائِشَةَ أُمَّ الْمُؤْمِنِينَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا، فَقَالَتْ‏:‏ إِنَّ زَوْجَ إِحْدَانَا يُرِيدُهَا فَتَمْنَعُهُ نَفْسَهَا، إِمَّا أَنْ تَكُونَ غَضَبَى أَوْ لَمْ تَكُنْ نَشِيطَةً، فَهَلْ عَلَيْنَا فِي ذَلِكَ مِنْ حَرَجٍ‏؟‏ قَالَتْ‏:‏ نَعَمْ، إِنَّ مِنْ حَقِّهِ عَلَيْكِ أَنْ لَوْ أَرَادَكِ وَأَنْتِ عَلَى قَتَبٍ لَمْ تَمْنَعِيهِ، قَالَتْ‏:‏ قُلْتُ لَهَا‏:‏ إِحْدَانَا تَحِيضُ، وَلَيْسَ لَهَا وَلِزَوْجِهَا إِلاَّ فِرَاشٌ وَاحِدٌ أَوْ لِحَافٌ وَاحِدٌ، فَكَيْفَ تَصْنَعُ‏؟‏ قَالَتْ‏:‏ لِتَشُدَّ عَلَيْهَا إِزَارَهَا ثُمَّ تَنَامُ مَعَهُ، فَلَهُ مَا فَوْقَ ذَلِكَ، مَعَ أَنِّي سَوْفَ أُخْبِرُكِ مَا صَنَعَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم‏:‏ إِنَّهُ كَانَ لَيْلَتِي مِنْهُ، فَطَحَنْتُ شَيْئًا مِنْ شَعِيرٍ، فَجَعَلْتُ لَهُ قُرْصًا، فَدَخَلَ فَرَدَّ الْبَابَ، وَدَخَلَ إِلَى الْمَسْجِدِ، وَكَانَ إِذَا أَرَادَ أَنْ يَنَامَ أَغْلَقَ الْبَابَ، وَأَوْكَأَ الْقِرْبَةَ، وَأَكْفَأَ الْقَدَحَ، وَأطْفَأَ الْمِصْبَاحَ، فَانْتَظَرْتُهُ أَنْ يَنْصَرِفَ فَأُطْعِمُهُ الْقُرْصَ، فَلَمْ يَنْصَرِفْ، حَتَّى غَلَبَنِي النَّوْمُ، وَأَوْجَعَهُ الْبَرْدُ، فَأَتَانِي فَأَقَامَنِي ثُمَّ قَالَ‏:‏ أَدْفِئِينِي أَدْفِئِينِي، فَقُلْتُ لَهُ‏:‏ إِنِّي حَائِضٌ، فَقَالَ‏:‏ وَإِنْ، اكْشِفِي عَنْ فَخِذَيْكِ، فَكَشَفْتُ لَهُ عَنْ فَخِذَيَّ، فَوَضَعَ خَدَّهُ وَرَأْسَهُ عَلَى فَخِذَيَّ حَتَّى دَفِئَ‏.‏ فَأَقْبَلَتْ شَاةٌ لِجَارِنَا دَاجِنَةٌ فَدَخَلَتْ، ثُمَّ عَمَدَتْ إِلَى الْقُرْصِ فَأَخَذَتْهُ، ثُمَّ أَدْبَرَتْ بِهِ‏.‏ قَالَتْ‏:‏ وَقَلِقْتُ عَنْهُ، وَاسْتَيْقَظَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم فَبَادَرْتُهَا إِلَى الْبَابِ، فَقَالَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم‏:‏ خُذِي مَا أَدْرَكْتِ مِنْ قُرْصِكِ، وَلاَ تُؤْذِي جَارَكِ فِي شَاتِهِ‏.‏

حدثنا عبد الله بن يزيد، قال‏:‏ حدثنا عبد الرحمن بن زياد قال‏:‏ حدثني عمارة بن غراب، أن عمة له حدثته، أنها سألت عائشة أم المؤمنين رضي الله عنها، فقالت‏:‏ إن زوج إحدانا يريدها فتمنعه نفسها، إما أن تكون غضبى أو لم تكن نشيطة، فهل علينا في ذلك من حرج‏؟‏ قالت‏:‏ نعم، إن من حقه عليك أن لو أرادك وأنت على قتب لم تمنعيه، قالت‏:‏ قلت لها‏:‏ إحدانا تحيض، وليس لها ولزوجها إلا فراش واحد أو لحاف واحد، فكيف تصنع‏؟‏ قالت‏:‏ لتشد عليها إزارها ثم تنام معه، فله ما فوق ذلك، مع أني سوف أخبرك ما صنع النبي صلى الله عليه وسلم‏:‏ إنه كان ليلتي منه، فطحنت شيئا من شعير، فجعلت له قرصا، فدخل فرد الباب، ودخل إلى المسجد، وكان إذا أراد أن ينام أغلق الباب، وأوكأ القربة، وأكفأ القدح، وأطفأ المصباح، فانتظرته أن ينصرف فأطعمه القرص، فلم ينصرف، حتى غلبني النوم، وأوجعه البرد، فأتاني فأقامني ثم قال‏:‏ أدفئيني أدفئيني، فقلت له‏:‏ إني حائض، فقال‏:‏ وإن، اكشفي عن فخذيك، فكشفت له عن فخذي، فوضع خده ورأسه على فخذي حتى دفئ‏.‏ فأقبلت شاة لجارنا داجنة فدخلت، ثم عمدت إلى القرص فأخذته، ثم أدبرت به‏.‏ قالت‏:‏ وقلقت عنه، واستيقظ النبي صلى الله عليه وسلم فبادرتها إلى الباب، فقال النبي صلى الله عليه وسلم‏:‏ خذي ما أدركت من قرصك، ولا تؤذي جارك في شاته‏.‏


'Umara ibn Ghurab reported that an aunt of his told him that she asked 'A'isha, Umm al-Mu'minin, "If a woman's husband desires her and she refuses to give herself to him either because she is angry or not eager, is there anything wrong in that?" "Yes," she replied. "Part of his right over you is that if he desires you when you are on a saddle, you must not refuse him." She said, "I also asked her, 'If one of us is menstruating and she and her husband only have a single cover, what should she do?' She replied, 'She should wrap her wrapper around her and sleep with him. He can have what is above it. I will tell you what the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, did on one of his nights with me. I had cooked some barley and made loaf for him. He came in, stopped at the door, and then went into the mosque. When he wanted to sleep, he closed the door, tied up the waterskin, turned the cup over and put out the light. I waited for him and he ate the loaf. He did not go until I fell asleep. Later he felt the cold and came and got me up. "Warm me! Warm me!" he said. I said, "I am menstruating." He said, "Then uncover your thighs," so I uncovered my thighs and he put his cheek and head on my thighs until he was warm. Then a pet sheep belonging to our neighbour came in. I went and took the load away. I disturbed the Prophet, may Allah bless him and grant him peace, and he woke up, so I chased the sheep to the door. The Prophet, may Allah bless him and grant him peace, said, "Take what you got of your loaf and do not injure your neighbour's sheep."'


হাদিসের মানঃ যঈফ (Dai'f)
পুনঃনিরীক্ষণঃ
আল-আদাবুল মুফরাদ
প্রতিবেশীর সাথে সদাচার
দেখানো হচ্ছেঃ থেকে ২০ পর্যন্ত, সর্বমোট ২৯ টি রেকর্ডের মধ্য থেকে পাতা নাম্বারঃ 1 2 পরের পাতা »